lux channel i superstar 2012 samia




আগামী দিনের সুপারস্টার খোঁজার আয়োজন লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার ২০১২’-এর জমকালো গ্রান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হলো শুক্রবার রাতে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্রে। সেরা পাঁচ প্রতিযোগীর মধ্যে অন্যদের টপকে শেষ হাসি হাসলেন পাবনার মেয়ে সামিয়া হোসেন খান। তাকে তারকাখচিত মুকুট পরিয়ে দেন গতবারের সেরাসুন্দরী রাখি। পুরস্কার হিসেবে সামিয়া পেয়েছেন একটি ব্রান্ড গাড়ি।

এবারের প্রতিযোগিতায় প্রথম রানার আপ প্রসূন আজাদ এবং দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন সামিহা সাইদ। পুরস্কার হিসেবে তারা পেয়েছেন যথাক্রমে পাঁচ লাখ ও তিন লাখ টাকা। এছাড়া প্রতিযোগিতায় সেরা দশে উঠে আসা প্রত্যেকে পেয়েছেন এক লাখ টাকা। এছাড়া তারা পাচ্ছেন অভিনয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক শিক্ষাবৃত্তি ও বিভিন্ন উপহার সামগ্রী।



বিশেষ পুরস্কার হিসেবে পন্ডস মিস বিউটিফুল স্কিন তারিন, সানসিল্ক বিউটিফুল হেয়ার নাদিয়া ও কোজআপ বিউটিফুল স্মাইল পুরস্কার পান সামিহা। তাদের প্রত্যেককে দেওয়া হয় একলাখ টাকা করে।

লিভ বিউটিফুল বা সৌন্দর্যে বাঁচোস্লোগান নিয়ে এবারের লাক্স-চ্যানেল আই প্রতিযোগিতা শুরু হয় চলতি বছরের ২২ এপ্রিল। সারা দেশ থেকে অর্ধ লক্ষাধিক সুন্দরী এবার অডিশনে অংশ নেয়। প্রাথমিক বাছাই, অডিশন ও সিলেকশন রাউন্ড শেষে শীর্ষ ২০ প্রতিযোগী নিয়ে শুরু হয় বুট ক্যাম্প। এতে নানা বিষয়ে তাদের গ্রুমিং করান দেশের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী, পরিচালক, ফ্যাশন ডিজাইনার ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বরা। সেখান থেকে পর্যায়ক্রমে ১০ জন প্রতিযোগী নির্বাচন করে তাদের আলাদাভাবে বিউটি, গ্ল্যামার, ফ্যাশন, মডেলিং, নাচ ও অভিনয়ের উপর ট্রেনিং দেওয়া হয়। তাদের মধ্য থেকে বিচারকদের রায়ে সেরা পাঁচ প্রতিযোগীকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় গ্র্যান্ড ফিনালের অনুষ্ঠান।



এবারের সপ্তম বারের মতো আয়োজিত প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বরেণ্য জাদুশিল্পী জুয়েল আইচ, অভিনেতা-নির্মাতা তৌকীর আহমেদ, অভিনেত্রী-নির্মাতা আফসানা মিমি ও অভিনেত্রী তারিন।

গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আয়োজক ইউনিলিভার বাংলাদেশের ব্র্যান্ড বিল্ডিং ডিরেক্টর কেএসএম মিনহায। আরো বক্তব্য রাখেন চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর এমপি।



গত ৬ বছরের শীর্ষ প্রতিযোগীদের পারফরম্যান্সের মাধ্যমে শুরু হয় গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠান। এবারের শীর্ষ বিশের মনমাতানো পরিবেশনায় জমে উঠে অনুষ্ঠান। এরপর শুরু হয় এবারের সেরা ৫ প্রতিযোগীর ক্যাটওয়াক ও ড্যান্স পারফরম্যান্স। একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন ফুয়াদ আল মুক্তাদির। এছাড়া অনুষ্ঠানে নানা পরিবেশনা নিয়ে অংশ নেন ফুয়াদ নাসের বাবু, কাজী হাবলু, মুনির হোসেন, লাবলু ও শাসা পিংকার্স।



২০০৫ সালে প্রথমবার এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীর মুকুট পরেছিলেন শানারেই দেবী শানু। ২০০৬ সালে জাকিয়া বারী মম, ২০০৭ সালে বিদ্যা সিনহা মিম, ২০০৮ সালে চৈতি, ২০০৯ সালে মেহজাবীন ও ২০১০ সালে শিরোপা জিতে নেন রাখি। ২০১১ সালে এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়নি।

চ্যানেল আই পুরো অনুষ্ঠানটি থেকে বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্র থেকে সরাসরি সম্প্রচার করে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১২
( সংগ্রহ )


Share on Google Plus

About mahadi hasan

This is a short description in the author block about the author. You edit it by entering text in the "Biographical Info" field in the user admin panel.
    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment